26th Feb 2018: Congratulation all comrades to make March to Sanchar Bhawan a great success,

Implement 3rd PRC with effect from 01.01.2017.

No tower subsidiary company in BSNL. 

 

3rd Jan 2019: ৮ ও ৯ জানুয়ারি দুদিনের সাধারণ ধর্মঘট সফল করুন ,

কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মচারী বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নগুলির ডাকে আগামী ৮ ও ৯ জানুয়ারি দুদিনের সাধারণ ধর্মঘট এর ডাক দেওয়া হয়েছে । এই ধর্মঘটে বিএসএনএল এর সমস্ত কর্মচারীদের সামিল হওয়ার জন্য বিএসএনএলইইউ আহ্বান জানাচ্ছে। 

 

1st Feb 2019: ৩ দিনের ধর্মঘট ,

অল ইউনিয়ন এবং অ্যাসোসিয়েশন অফ বিএসএনএল এর ডাকে ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে  তিন দিনের ধর্মঘট সফল করুন 

 

Com Prabir Kumar Dutta
( President )

Com. Sisir Kumar Roy
( Secretary )

Com. Debasis Dey
( Treasurer )

 
 
bsnleuctc@yahoo.co.in
 
BSNL Employees Union Calcutta Telephones Circle
 
Site Updated On : 19th Feb 2019
 
[19th Feb 2019]

এইউএবি কলকাতা টেলিফোন্স সার্কেল এর গৃহীত সিদ্ধান্ত - 

 

কলকাতা টেলিফোন্স সার্কেল এর এইউএবি নেতৃত্ব ধর্মঘটী বিএসএনএল এর সমস্ত কর্মচারীদের কেন্দ্রীয় সরকারের রাষ্ট্রায়ত্ত ক্ষেত্র তথা বিএসএনএল বিরোধী ও প্রো-প্রাইভেট পলিসির বিরুদ্ধে প্রথম দিনের ধর্মঘট সফল করার জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন।

এইউএবি নেতৃত্ব ১৮ ফেব্রুয়ারি ধর্মঘট এর পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে আগামী ১৯ ও ২০ ফেব্রুয়ারি সমস্ত এইউএবি নেতৃত্ব ও সংগঠকদের সকাল সাড়ে নয়টার মধ্যে অফিস দফতরের সামনে জমায়েত হওয়ার জন্য আবেদন জানান হচ্ছে ।

 
[18th Feb 2019]

ধর্মঘট ব্যাপক ও সর্বত্র - ধর্মঘটী সাথীদের লাল  সেলাম 

 

আজ রাত ০০:০০ ঘন্টা থেকে এইউএবি এর আহ্বানে বিএসএনএল কর্মচারীদের তিন দিনের ধর্মঘট শুরু হয়েছে। এইউএবি এর ডাকা এই ধর্মঘটে বিএসএনএল এর সমস্ত আধিকারিক ও নন-এক্সিকিউটিভ কর্মচারীরা ব্যাপকভাবে সাড়া দিয়েছেন। বিএসএনএল এর প্রায় সমস্ত সার্কেলে ধর্মঘট ১০০ শতাংশ সফল । ডিওটি এর উদ্ধত ও বদমেজাজির উপযুক্ত প্রতুত্তর দিয়েছেন বিএসএনএল এর কর্মচারীরা । বিএসএনএলইইউ এই ধর্মঘট সফল করার জন্য সমস্ত নেতৃত্ব ও সংগঠকদের অভিবাদন জানায়। এই ঐতিহাসিক ধর্মঘটের মাধ্যমে বিএসএনএল এর সমস্ত এক্সিকিউটিভ ও নন-এক্সিকিউটিভ কর্মচারীরা দ্বর্থহীন ভাষায় কেন্দ্রীয় সরকার কে বুঝিয়ে দিলেন যে তারা সরকারের বিএসএনএল কে রুগ্ন করার মাধ্যমে রিলায়েন্স জিও এর উন্নতি বরদাস্ত করবেন না। বিএসএনএলইইউ আশা রাখে আগামী দুদিন কর্মচারীরা এই উদ্দীপনা ও কর্মশক্তি ধরে রাখবেন । 

 
[17th Feb 2019]

এখন কর অথবা মর পরিস্থিতি - এএইউএবি বিএসএনএল এর সমস্ত কর্মচারীদের আহ্বান জানাচ্ছে যে তিন দিনের ধর্মঘট ব্যাপকভাবে সংগঠিত করতে হবে 

 

এই সংকটজনক পরিস্থিতিতে এইউএবি এর নেতৃবৃন্দ মিটিং এ বসেন । এই সভায় বিএসএনএলইইউ, এনএফটিই, এসএনইএ, এআইবিএসএনএলইএ, এআইজিইটিওএ,  এটিএম,  টিইপিইউ, বিএসএনএল এমএস ও বিএসএনএল ওএ এর জিএস ও বর্ষীয়ান নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আসন্ন তিন দিনের ধর্মঘট এর সারা দেশ জুড়ে প্রস্তুতির পর্যালোচনা করা হয় সভায়। এই সভায় উপস্থিত সাধারণ সম্পাদকেরা তাদের রিপোর্ট পেশ করেন। তাদের মত অনুসারে ধর্মঘট এর প্রস্তুতি অত্যন্ত ভাল ভাবে সংগঠিত হয়েছে। বিশেষত গত দুদিনে প্রচারের ব্যাপকতা বৃদ্ধি পেয়েছে । সমস্ত বিষয়গুলি পর্যালোচনা করার পর সভা সর্বসম্মতিক্রমে ধর্মঘট এর পথে এগোনোর সিদ্ধান্ত নেয় । ধর্মঘট আজ মধ্য রাতে (০০:০০) শুরু হচ্ছে। কোনও কমরেডের এই ব্যাপারে কোন জিজ্ঞাস্য থাকলে তিনি তার সাধারণ সম্পাদক এর সঙ্গে আলোচনা করবেন ।

এএইউএবি জিন্দাবাদ 

 
[13th Feb 2019]

তিন দিনের ধর্মঘট এর সমর্থনে কলকাতা টেলিফোন এর আসন্ন কর্মসূচি :

 

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার এইউএবি এর ডাকা ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে তিন দিনের ধর্মঘট এর সমর্থনে কলকাতা টেলিফোন্স সার্কেল এর নিম্নলিখিত স্থানে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে -

১) সেন্ট্রাল এরিয়ার বড়বাজার এক্সচেঞ্জে বেলা ১২টায়।

২) সাউথ এরিয়ার বালীগঞ্জ প্লেসে বেলা ১২টায় ।

৩) যাদবপুর এরিয়ায় যাদবপুর এক্সচেঞ্জে দুপুর ২টায়।

 

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি টেলিফোন ভবন এ কেন্দ্রীয় জমায়েত ও মানব বন্ধন কর্মসূচি পালন করা হবে তিন দিনের ধর্মঘট এর বিষয়ে সাধারণ মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য।

এইউএবি এর সমস্ত সংগঠকদের অনুরোধ জানানো হচ্ছে যে উপরোক্ত কর্মসূচিতে বেশি সংখ্যক সদস্যদের উপস্থিতির মাধ্যমে ধর্মঘট সফল করার জন্য উদ্যোগ নিতে । 

 
[13th Feb 2019]

ধর্মঘট সফল করার জন্য বিএসএনএলইইউ এর সাধারণ সম্পাদক এর আবেদন :

 

প্রিয় কমরেড

আমাদের ধর্মঘট এর প্রস্তুতির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি হচ্ছে। সেটা আমি বুঝতে পারছি। কিন্তু এই চাপ আমাদের দাবিগুলি আদায় করার জন্য যথেষ্ট নয়। আমি সমস্ত কর্মচারী বন্ধুদের অনুরোধ করছি যে আসন্ন স্ট্রীট কর্ণার মিটিং ও পরিবার পরিজনদের নিয়ে মিছিল ব্যাপকভাবে সংগঠিত করতে হবে। ধর্মঘটকে ১০০ শতাংশ সফল করার প্রয়োজন। আমাদের এই ব্যাপারে সর্বতো ভাবে প্রচেষ্টা গ্রহণ করতে হবে ।

পি অভিমন্যু, সাধারণ সম্পাদক, বিএসএনএলইইউ 

 
[13th Feb 2019]

কেন্দ্রীয় সরকার বিএসএনএল কে বন্ধ করে দিতে চাইছেন - ঝুলি থেকে বেড়াল বেড়িয়ে পরেছে - আসুন সংগ্রাম গড়ে তুলি এবং আসন্ন তিন দিনের ধর্মঘটকে  ঐতিহাসিক ধর্মঘটে পরিনত করি 

 

আজকের টাইমস অব ইন্ডিয়া কাগজে যে খবর বের হয়েছে সেখানে কেন্দ্রীয় সরকার বিএসএনএল এর সঙ্গে কিরকম ব্যবহার  করতে চান তার বিস্তারিত তথ্য আছে। টাইমস অব ইন্ডিয়া কাগজের রিপোর্ট অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকারের একটি অভিমত বিএসএনএল কে বন্ধ করে দেয়া। অন্য মতটি হল বিএসএনএল  এর বৃহদাংশ শেয়ার কোন  পুঁজিপতির হাতে তুলে দেওয়া এবং ঐ পুঁজিপতিকে বিএসএনএল এর অংশীদার করা। এই বিষয়টীকে বলে স্ট্রাটেজিক সেল। শেষ পর্যন্ত ঝুলি থেকে বেড়াল বেড়িয়ে পড়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার তার প্রস্তাব নির্লজ্জ ভাবে রেখেছেন হয় বিএসএনএল কে বন্ধ করা হবে অথবা পুঁজিপতিদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। এখন বিএসএনএল এর কর্মচারীদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমরা আত্মসমর্পণ করব না। বিগত ১৮ বছর,  লড়াই সংগ্রামের মাধ্যমে বিএসএনএল কে ১০০ শতাংশ কেন্দ্রীয় সরকারের মালিকানাধীন সংস্থা হিসেবে আমরা রক্ষা করেছি। বিএসএনএল কে রক্ষার জন্য আমাদের সংগ্রাম জারি রাখতে হবে। আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে তিন দিনের ধর্মঘটে ব্যাপক অংশ গ্রহণ করতে হবে। কেন্দ্রীয় সরকার কে বুঝিয়ে দিতে হবে যে বিএসএনএল এর কর্মচারীরা বিএসএনএল কে ধ্বংস করার চেষ্টা মেনে নেবেন না। বিএসএনএল কে বেসরকারীকরন করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের জঘন্য চক্রান্তকে রুখতে আমরা আমাদের সর্বশক্তি দিয়ে লড়াই চালিয়ে যাব। 

 
[11th Feb 2019]

জানুয়ারি মাসের টেলিকম ওয়ার্কার 

 

https://drive.google.com/file/d/1WZmt77lZsYN_C4SCtlTHp1I9Z8SFVO9q/view?usp=drivesdk

 
You are Visitor Number Hit Counter
Hit Counter
[CHQ] [AP] [Kerala] [Karnataka] [Tamil Nadu] [Calcutta] [West Bengal] [Punjab] [Maharashtra] [Orissa] [MP] [Gujrat] [SNEA] [AIBSNLEA] [TEPU]
[Intranet / BSNL] [DOT] [DPE] [TRAI] [PIB] [CITU ] / AIBDPA