15th Aug 2019: আসন্ন অষ্টম মেম্বারশীপ ভেরিফিকেশন ,

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ অষ্টম মেম্বারশীপ ভেরিফিকেশন এ বিএসএনএল এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন কে পুনরায় বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করুন 

 

20th Mar 2019: বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করুন,

আগামী ২২ মার্চ ২০১৯  বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস বিএসএনএল এর প্রতিটি অফিস দফতরে ব্যাপক ঊদ্দীপনার সাথে পালন করুন। 

 

Com Sisir Kumar Roy
( President )

Com. Shankar Keshar Nepal
( Secretary )

Com. Jayanta Ghosh
( Treasurer )

 
 
bsnleuctc@yahoo.co.in
 
BSNL Employees Union Calcutta Telephones Circle
 
Site Updated On : 23rd May 2024
 
[22nd May 2024]

বিএসএনএলইইউ গ্রাচুইটি প্রদানের বিষয়ে ইআরপি সিস্টেমে একটি ত্রুটি অপসারণের অনুরোধ করে ডাইরেকটর (এইচআর) কে চিঠি দেয়

 

সিএইচকিউ আজ ডিরেক্টর (এইচআর) কে একটি চিঠি লিখেছে, ইআরপি সিস্টেমে একটি প্রযুক্তিগত সমস্যা দূর করার অনুরোধ জানিয়ে, গ্র্যাচুইটি প্রদানের বিষয়ে। বিএসএনএল গ্র্যাচুইটি ট্রাস্টের নিয়ম অনুসারে, 6 মাস বা তার বেশি পরিষেবার যে কোনও অংশ, 5 বছরের প্রাথমিক সময়কাল শেষ হওয়ার পরে, 1 বছর হিসাবে গণ্য করা উচিত। তবে বিএসএনএল গ্র্যাচুইটি ট্রাস্ট নিয়মের উপরোক্ত বিধান বাস্তবায়নের জন্য ইআরপি সিস্টেমে এর জন্য প্রয়োজনীয় বিধান করা হয়নি। ইআরপি সিস্টেম শুধুমাত্র সম্পূর্ণ বছর গণনা করছে। এর ফলস্বরূপ, এম ভেঙ্কটেশ নামে কর্ণাটক সার্কেলের একজন মৃত কর্মচারীর পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

তাই, বিএসএনএলইইউ আজ ডিরেক্টর (এইচআর) কে চিঠি লিখেছে, যাতে এই সমস্যার সমাধান নিশ্চিত করার অনুরোধ করা হয়।

-জন ভার্গিস, ভারপ্রাপ্ত জিএস।

 
[22nd May 2024]

কর্মীদের গ্রুপ হেলথ ইন্স্যুরেন্স প্রিমিয়ামের পরিমাণ ম্যানেজমেন্টের বহন করা উচিত -বিএসএনএলইইউ সিএমডি বিএসএনএল কে চিঠি দিয়েছে

 

2022 সালের মে থেকে ইচ্ছুক বিএসএনএল কর্মীদের জন্য একটি গ্রুপ হেলথ ইন্স্যুরেন্স স্কিম ইতিমধ্যেই কার্যকর করা হয়েছে৷ বিএসএনএলইইউ ক্রমাগত ম্যানেজমেন্টের কাছে দাবি করে আসছে যে কর্মীদের প্রিমিয়ামের পরিমাণ কর্তৃপক্ষকে বহন করতে হবে, যারা গ্রুপ হেলথ ইন্স্যুরেন্স স্কিমে যোগদান করেছে৷ এটি এই বিষয়টির পরিপ্রেক্ষিতে যে, বিএসএনএল এমআরএস- এর কারণে কোম্পানির ব্যয় অনেকাংশে কমে গেছে, হাজার হাজার কর্মচারী গ্রুপ হেলথ ইন্স্যুরেন্স স্কিমে যোগদানের কারণে। যদিও এখনও পর্যন্ত বিএসএনএলইইউ- র এই দাবি মেনে নেয়নি ম্যানেজমেন্ট। বর্তমানে, বীমা কোম্পানি প্রিমিয়ামের পরিমাণ উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি করছে। এই পরিস্থিতিতে, বিএসএনএলইইউ আজ আবার সিএমডি বিএসএনএল কে চিঠি দিয়েছে, দাবি করেছে যে ম্যানেজমেন্টকে কর্মীদের প্রিমিয়ামের পরিমাণ সম্পূর্ণ বা কমপক্ষে 50% পর্যন্ত বহন করতে হবে।

-জন ভার্গিস, ভারপ্রাপ্ত জিএস।

 
[21st May 2024]

ওয়ে ইস্ট ডিজিএম, অফিসের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ

img-20240517-wa0068 | img-20240521-wa0065 | img-20240521-wa0061
 

21.05.2024 বিএসএনএল কো - অর্ডিনেশন কমিটির ডাকে ওয়ে ইস্ট ডিজিএম, অফিসের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ হয় বেলা ১ টা৩০ মিনিটে টেরিটিবাজারে। সভাপতিত্ব করেন ওয়ে ইস্ট এবং বিএ হেডকোয়ার্টারের কনভেনর কমরেড সুকান্তি মুখার্জী এবং কমরেড বিশ্বজিৎ শীল।

কমরেড সুকান্তি মুখার্জী ৬ দফা দাবি -১) সেপ্টেম্বর,২০২৪ মধ্যে ১ লক্ষ ভারত ফাইবার কানেকশন, ২) অবিলম্বে ৪/৫ জি মোবাইল পরিষেবা চালু, ৩) বিভাগীয় কর্মী দিয়ে সিএসসি চালানো, ৪) নিয়মিত এবং অনিয়মিত কর্মী দিয়ে ভারত ফাইবার কানেকশন এবং রক্ষনাবেক্ষন করতে হবে, ৫) অবসরের পর বিএসএনএল থেকে পেনশনারদের পুনরায় সম্বর্ধনা চালু করতে হবে। ৬) কর্মরত এবং পেনশনারদের ল্যান্ডলাইন এর মত ভারত ফাইবার কানেকশন দিতে হবে এই দাবি নিয়ে বক্তব্য রাখেন। এআইবিডিপি এর পক্ষে কমরেড অঘোর সিকদার বর্তমান পরিস্তিতি ব্যাখ্যা এবং আমাদের কর্তব্য সম্পর্কে ভাষন দেন। কমরেড শঙ্কর কেশর নেপাল, সার্কেল সম্পাদক বিএসএনইএলইইউ, সমস্ত দাবি গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করে দাবি গুলো অবিলম্বে পূরণ করার জন্য আরও জোরালো আন্দোলনের কথা বলেন।এর পরে কমরেড রাম সুন্দর বোস, সহসম্পাদক, কমরেড বিনয় কুমার সিং ,সহসম্পাদক, কমরেড সুলগ্না বাসু, সহসভানেত্রী বিস্তারিত ব্যাখ্যা করেন আমাদের দাবিগুলো নিয়ে।বিএসএনএল কে বাঁচাতে আগামী নির্বাচনে কেন বামপন্থীদের সংসদে পাঠানোর দরকার হবে তার ব্যাখ্যা দেন।এই সভায় কম :মনীষা বিশ্বাস এআইবিডিপিএ, সহসম্পাদিকা সার্কেল,কম : জয়ন্ত ঘোষ,সার্কেল কোষাধক্ষ,কম : জয়ন্ত মুখার্জী, কম: প্রসেনজিৎ সাঁতরা সার্কেল সাংগঠনিক সম্পাদক, কম : সুজিত গাঙ্গুলী, সুব্রত পাল, স্বপন কুমার দাস, প্রসেনজিৎ রায়, শাখার সম্পাদকগণ, শ্যামল পাল, স্বপন মিশ্র, কনক চক্রবর্তী, কেশব নাগরি, সমীর বিশ্বাস,শর্মিলা দত্ত, তাপস চ্যাটার্জী সহ অনেক নেতৃত্ব উপস্থিত ছিলেন।

ডিজিএম শ্রী দীপংকর চৌধুরীর সংগে দেখা করে দাবিগুলো অবিলম্বে কার্যকর করার আর্জি জানানো হয়।শেষে ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কমরেড বিশ্বজিৎ শীল এবং তিনি সভা শেষ করেন।

-সুকান্তি মুখার্জী এবং বিশ্বজিৎ শীল 

কনভেনর ওয়ে ইস্ট এবং বিএ হেডকোয়ার্টার, 

বিএসএনএল কো - অর্ডিনেশন কমিটি।

 
[19th May 2024]

লাল সালাম কমরেড মনি বোস, পিএন্ডটি ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনের কিংবদন্তি নেতা

 

কম মনি বোসের ১৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে, আমরা কমরেড এর প্রতি আমাদের বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করছি। মনি বোস, পিএন্ডটি ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনের কিংবদন্তি নেতা। ভোপাল সর্বভারতীয় সম্মেলনে নির্বাচনে E-3 ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে মনি বোস নির্বাচিত হন। এর মধ্য দিয়ে তিনি টেলিকম ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনের গতিপথ পরিবর্তন করেন। তার নেতৃত্বে, E-3 ইউনিয়ন সরকারের কর্পোরেট- সমর্থক এবং শ্রমিকশ্রেণি বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নের ডাকা সাধারণ ধর্মঘটে যোগ দেওয়ার পথ- ব্রেকিং সিদ্ধান্ত নেয়। আজও, বিএসএনএলইইউ তাঁর দেখানো পথে এগিয়ে চলেছে। কম. মনি বোস ত্যাগের প্রতীক। 1945 সালে কলকাতার ডিইটি অফিসে কেরানি হিসাবে নিযুক্ত হন কমরেড মনি বোস। ডাক-তার কর্মচারীদের ঐতিহাসিক ধর্মঘটে অংশ নেওয়ার জন্য মনি বোসকে 1949 সালেই চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছিল। তবে তার বরখাস্ত মনি বোসকে আটকাতে পারেনি। 19 মে, 2010 তারিখে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করার আগে পর্যন্ত তিনি শ্রমজীবী ও দরিদ্র মানুষের স্বার্থে প্রচার করে গেছেন। মনি বোস হাজার হাজার কমরেডের অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে আছেন। এই উপলক্ষ্যে আমরা কমরেড এর প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করছি। 

কমরেড মনি বোসকে লাল সালাম। কমরেড মনি বোস অমর রহে।✊✊✊

 
[17th May 2024]

ওএ ওয়েষ্ট এর ডাকে সত্যবালা টেলিফোন এক্সচেঞ্জে বিক্ষোভ সমাবেশ 

img-20240517-wa0068 | img-20240517-wa0067 | img-20240517-wa0064
 

 ১৭-০৫-২০২৪ (শুক্রবার) বিএসএনএল এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন ও কো-অর্ডিনেশন কমিটি, জেলা ওএ ওয়েষ্ট এর ডাকে সত্যবালা টেলিফোন এক্সচেঞ্জে ৬ দফা দাবি নিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ সংগঠিত করে। সেই সমাবেশে 

সভাপতিত্ব করেন ওএ ওয়েষ্ট জেলার কনভেনার কমঃ বিনয় কুমার সিং। উদ্বোধনী বক্তব্যে সার্কেল সম্পাদক কমঃ শংকর কেশর নেপাল সেপ্টেম্বর, ২০২৪ এর মধ্যে ১ লক্ষ এফটিটিএইচ কানেকশন, অবিলম্বে ৪ জি মোবাইল পরিষেবা চালু, বিএসএনএল কর্মী সহ অনিয়মিত কর্মীদের বিভাগীয় কাজে যুক্ত করা সহ ৬ দফা দাবি নিয়ে বিএসএনএল এর বর্তমান পরিস্থিতি উপর বিস্তারিত আলোচনা করেন এবং এই সময়ে কর্মচারীদের অস্টাদশ লোকসভা নির্বাচনে কী করনীয় তা ব্যখ্যা করেন। এরপর যে বক্তারা বক্তব্য রাখেন-কমঃ সুকান্তি মুখার্জি, সহসার্কেল সম্পাদক ,ঠিকা-মজদুর সংগঠনের সার্কেল সম্পাদক কমঃ প্রদীপ্ত ঘোষ, কমঃ রামসুন্দর বোস, সহসার্কেল সম্পাদক, কর্টোর পক্ষে কমঃ অতনু মজুমদার, কমঃ সুলগ্না বাসু, ওয়ার্কিং ওমেন সাব কমিটির নেত্রী, এআইবিডিপিএ এর

সম্পাদক কমঃ দুলাল সাহা,সার্কেল সহ সম্পাদক কমঃ বিশ্বজিৎ শীল এবং কমঃ প্রবীর দত্ত। প্রত্যেক বক্তা তাদের বক্তব্যে দেশের সংবিধান, ধর্ম নিরপেক্ষতা রক্ষা করা, গনতন্ত্র রক্ষা করার কথা তুলে ধরে বিএসএনএল সহ রাস্ট্রায়াত্ত সংস্থা রক্ষার স্বার্থে বাম, গনতান্ত্রিক এবং ধর্মনিরপেক্ষ শক্তিকে বেশী বেশী করে জয়ী করার আহ্বান জানান। সভাপতি কমঃ বিনয় কুমার সিং তার বক্তব্যে বর্তমান পরিস্থিতিতে আমাদের কি করনীয় তা ব্যখ্যা করেন এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

ধন্যবাদসহ,

বিনয় কুমার সিং,কনভেনার জেলা ওএ (ওয়েষ্ট)

 
[17th May 2024]

নন- এক্সিকিউটিভ কর্মীদের এবং অবসরপ্রাপ্তদের ফাইবার ভিত্তিক বিনামূল্যে আবাসিক ল্যান্ডলাইন সংযোগ প্রদান করুন বিএসএনএলইইউ আবার সিএমডি বিএসএনএল কে চিঠি দিয়েছে

 

বিনামূল্যে আবাসিক ল্যান্ডলাইন সংযোগ হল একটি সুবিধা যা কর্মচারী এবং অবসরপ্রাপ্তদের দেওয়া হয়, জাতির কাছে তাদের সেবার প্রশংসার জন্য । গত 23 বছর ধরে কর্মচারী এবং অবসরপ্রাপ্তরা এই সুবিধা উপভোগ করছেন। বর্তমান বিএসএনএল ম্যানেজমেন্ট নন- এক্সিকিউটিভ কর্মচারীদের কোনো দাবিই মেটাতে পারেনি। তবে, এই ব্যবস্থাপনা কর্মচারী ও অবসরপ্রাপ্তদের কাছ থেকে বিনামূল্যে আবাসিক ল্যান্ডলাইন সংযোগের সুবিধা কেড়ে নিয়েছে। বিএসএনএলইইউ ক্রমাগত এই সমস্যাটি ম্যানেজমেন্টের সাথে নিয়ে যাচ্ছে এবং দাবি করছে যে ফাইবার ভিত্তিক বিনামূল্যে আবাসিক ল্যান্ডলাইন সংযোগ নন-এক্সিকিউটিভ কর্মচারী এবং অবসরপ্রাপ্তদের প্রদান করা উচিত। আবারও, আজ, বিএসএনএলইইউ সিএমডি বিএসএনএলকে একটি চিঠি লিখে এই সমস্যার দ্রুত নিষ্পত্তির দাবি জানিয়েছে।

-জন ভার্গিস, ভারপ্রাপ্ত জিএস।

 
[16th May 2024]

কমরেড প্রবীর পুরকায়স্থ, নিউজ ক্লিকের প্রতিষ্ঠাতা, সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃক মুক্ত

 

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট একটি অনলাইন পোর্টাল নিউজ ক্লিকের প্রতিষ্ঠাতা কম. প্রবীর পুরকায়স্থকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে৷ আদালত বলেছেন, আইন অনুযায়ী তাকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। কম. প্রবীর পুরকায়স্থ, কঠোর UAPA (বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইন) এর অধীনে গ্রেফতার হয়েছিলেন এবং ৩ অক্টোবর, ২০২৩ থেকে তিহার জেলে রাখা হয়েছিল। সরকার কম. প্রবীর পুরকায়স্থের বিরুদ্ধে একটি বানোয়াট অভিযোগ এনেছিল যে, তিনি চীন থেকে অর্থ গ্রহণ করছেন এবং তার ডিজিটাল মিডিয়ার মাধ্যমে দেশবিরোধী প্রচারের জন্য এটি ব্যবহার করছিল। এখানে উল্লেখ করা জরুরী যে, শ্রীমতি ইন্দিরা গান্ধী কর্তৃক ঘোষিত জরুরী অবস্থার সময় প্রবীর পুরকায়স্থকেও জেলে পাঠানো হয়েছিল। মোদি সরকারের শ্রমিক-কৃষক বিরোধী এবং কর্পোরেট বান্ধব নীতির বিরুদ্ধে ধারাবাহিক প্রচারের কারনে তাকে কারারুদ্ধ করে রাখা হয়েছিল । বিএসএনএলইইউ আন্তরিকভাবে কম. প্রবীর পুরকায়স্থকে অভিনন্দন জানাচ্ছে।

-জন ভার্গিস, ভারপ্রাপ্ত জিএস।

 
You are Visitor Number Hit Counter
Hit Counter
[CHQ] [AP] [Kerala] [Karnataka] [Tamil Nadu] [Calcutta] [West Bengal] [Punjab] [Maharashtra] [Orissa] [MP] [Gujrat] [SNEA] [AIBSNLEA] [TEPU]
[Intranet / BSNL] [DOT] [DPE] [TRAI] [PIB] [CITU ] / AIBDPA