20th Mar 2019: আসন্ন ৫ এপ্রিল সঞ্চার ভবন অভিযান সফল করুন,

Implement 3rd PRC with effect from 01.01.2017.

No tower subsidiary company in BSNL. 

 

3rd Jan 2019: ৮ ও ৯ জানুয়ারি দুদিনের সাধারণ ধর্মঘট সফল করুন ,

কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মচারী বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নগুলির ডাকে আগামী ৮ ও ৯ জানুয়ারি দুদিনের সাধারণ ধর্মঘট এর ডাক দেওয়া হয়েছে । এই ধর্মঘটে বিএসএনএল এর সমস্ত কর্মচারীদের সামিল হওয়ার জন্য বিএসএনএলইইউ আহ্বান জানাচ্ছে। 

 

1st Feb 2019: ৩ দিনের ধর্মঘট ,

অল ইউনিয়ন এবং অ্যাসোসিয়েশন অফ বিএসএনএল এর ডাকে ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে  তিন দিনের ধর্মঘট সফল করুন 

 

20th Mar 2019: বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করুন,

আগামী ২২ মার্চ ২০১৯  বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস বিএসএনএল এর প্রতিটি অফিস দফতরে ব্যাপক ঊদ্দীপনার সাথে পালন করুন। 

 

Com Prabir Kumar Dutta
( President )

Com. Sisir Kumar Roy
( Secretary )

Com. Debasis Dey
( Treasurer )

 
 
bsnleuctc@yahoo.co.in
 
BSNL Employees Union Calcutta Telephones Circle
 
Site Updated On : 17th Apr 2019
 
[27th Mar 2019]

চীফ জেনারেল ম্যানেজার, কলকাতা  টেলিফোন্স সার্কেল কে অল ইউনিয়ন এবং অ্যাসোসিয়েশন অফ বিএসএনএল এর পক্ষ থেকে চিঠি প্রদান 

 

আজ ২৭ মার্চ কলকাতা টেলিফোন্স সার্কেল এর এইউএবি নেতৃত্ব সিজিএম কলকাতা টেলিফোন্স এর সঙ্গে দেখা করেন এবং নিম্নলিখিত দুটি বিষয়ে চিঠি দেন।

১) ২২ মার্চ মিটিং এর জব কন্ট্রাক্ট লেবারদের ক্ষেত্রে ব্যায় সংকোচন এর যে মাইনুটস জিএম (এইচ আর এন্ড অ্যাডমিন) বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন তা অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে।

২) ১৮ থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি এইউএবি এর ডাকা ধর্মঘটে সামিল হওয়া কর্মচারীদের বেতন কেটে নেওয়ার জন্য যে অর্ডার বের করা হয়েছে তার তীব্র প্রতিবাদ জানান হচ্ছে । 

 
[22nd Mar 2019]

বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালন 

 

আজ বিএসএনএল এর প্রতিটি অফিস দফতরে বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস ব্যাপক উদ্দীপনা ও যথোপযুক্ত মর্যাদার সাথে পালন করা হয় । কম শিশির রায়, সার্কেল সম্পাদক, কম প্রবীর দত্ত, সার্কেল সভাপতি, কম বিশ্বজিৎ শীল, সহকারী সার্কেল সম্পাদক, কম শর্মিলা দত্ত, সহকারী সভাপতি, কম স্বপন ভারতী, সহকারী  সভাপতি, কম ইসরাফিল শেখ, সহকারী সভাপতি এবং অন্যান্য ডিস্ট্রিক্ট সম্পাদকগণ  বিএসএনএল এর বিভিন্ন অফিস দফতরে প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন । তারা তাদের বক্তব্যে সাধারণ সদস্যদের আজকের দিনের গুরুত্ব ও তাৎপর্য ব্যাখ্যা করেন । এছাড়া কেন্দ্রীয় সরকারের রাষ্ট্রায়ত্ত ক্ষেত্র বিরোধী ও প্রো-প্রাইভেট পলিসির বিরুদ্ধে আন্দোলনে বিএসএনএল এর ভূমিকা ব্যাখ্যা করেন । সমস্ত স্তরের কর্মচারীর উপস্থিতিতে এই সভাগুলি সার্বিক ভাবে সাফল্য মন্ডিত হয়েছে । 

 
[22nd Mar 2019]

জিএম (এইচ আর এন্ড অ্যাডমিন) এর সঙ্গে মিটিং 

 

আজ ২২ মার্চ কম শিশির রায়, সার্কেল সম্পাদক, বিএসএনএলইইউ, কম বিশ্বজিৎ শীল, সহকারী সার্কেল সম্পাদক, কম শর্মিলা দত্ত, সহকারী সভাপতি জিএম (এইচ আর এন্ড অ্যাডমিন) এর সঙ্গে দেখা করেন এবং নিম্নলিখিত বিষয়গুলি আলোচনা করেন -

১) জব কন্ট্রাক্ট লেবারদের বেতন প্রদান ।

২) জব কন্ট্রাক্ট লেবারদের টেন্ডার চুড়ান্ত করা।

৩) সার্কেল কাউন্সিল মিটিং এর তারিখ স্থির করা ।

৪) লোকাল কাউন্সিল মিটিং এর তারিখ স্থির করা ।

৫) ট্রেনিং শেষ হওয়ার পর জেইদের পোস্টিং দেওয়া ।

 
[21st Mar 2019]

বিএসএনএল ও জেট এয়ারওয়েজ - কেন্দ্রীয় সরকারের দুটি ভিন্ন পদক্ষেপ 

 

জেট এয়ারওয়েজ যা কয়েক বছর আগেও ভারতের এয়ারওয়েজ কোম্পানীগুলির মধ্যে বৃহত্তম কোম্পানি ছিল তা গভীর আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন । বিগত তিন মাস ধরে পাইলটদের বেতন প্রদান করা হয় নি । তারা আগামী ০১.০৪.২০১৯ এর মধ্যে বেতন প্রদান না করা হলে ধর্মঘটে যাবার হুমকি দিয়েছেন ।  জেট এয়ারওয়েজ এর মোট ঋণের পরিমাণ ১০ লক্ষ ইউএস ডলার । এই কোম্পানিটি এখন সপ্তাহে মাত্র ১৪০ টি উড়ান চালাচ্ছে যেখানে কয়েক মাস আগে সপ্তাহে ৬০০টি উড়ান চালাত । এই  ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ উন্নতি যেটা আমরা লক্ষ্য করছি তা হলো কেন্দ্রীয় সরকার একটি বিশেষ ক্যাবিনেট মিটিং করে বেল আউটের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন । ২০.০৩.২০১৯ এর ইকনমিক টাইমস এর রিপোর্ট অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকার ব্যাঙ্কগুলিকে জেট এয়ারওয়েজ কে ঋণ দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করছেন । আমরা জেট এয়ারওয়েজ একটি বেসরকারি সংস্থা হওয়া সত্ত্বেও কেন্দ্রীয় সরকারের এই প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানাই । কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের নিয়ন্ত্রণাধীন বিএসএনএল এর সম্পর্কে কি পদক্ষেপ নেওয়া হল? বিএসএনএল আর্থিক সমস্যার থেকে ঘুরে দাড়ানোর জন্য বারবার কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে ব্যাঙ্ক ঋণ এর অনুমোদন চেয়েছে । কিন্তু মাননীয় মন্ত্রী বা কেন্দ্রীয় সরকার বিএসএনএল কে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসেন নি । যদিও জেট এয়ারওয়েজ এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকার বিশেষ মিটিং করছেন ও ব্যাঙ্কগুলিকে ঋণ দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করছেন । কেন্দ্রীয় সরকারের কর্পোরেট অনুসারী ও রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বিরোধী নীতির সম্পর্কে আর কোন উদাহরণ দেওয়ার প্রয়োজন নেই ।বিএসএনএল এর এই সঙ্কটাপন্ন অবস্থার জন্য  কেন্দ্রীয় সরকারের এই নীতিই দায়ী । এইউএবি কে সঙ্গে নিয়ে বিএসএনএলইইউ ক্রমাগত কেন্দ্রীয় সরকারের বিএসএনএল বিরোধী ও প্রো-প্রাইভেট পলিসির বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে । যদিও আমাদের সঙ্গে কিছু উন্নত মেধার মানুষ আছেন যেসব বিশেষজ্ঞের মতানুসারে আমাদের কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মচারী বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন করা উচিত নয় ।

 
[19th Mar 2019]

আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন :

 

আজ ১৯ মার্চ বেলা দুটায় বিএসএনএলইইউ, কলকাতা  টেলিফোন্স সার্কেল এর উদ্যোগে টেলিফোন ভবন লেডিজ ক্লাবে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে একটি আলোচনা সভা আয়োজিত হয় । এই সভায় কম বনবানী ভট্টাচার্য, এআইডিডব্লুএ এর রাজ্য নেত্রী প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ।  কম শিশির রায়, সার্কেল সম্পাদক উপস্থিত সদস্যদের সামনে আন্তর্জাতিক নারী দিবসের গুরুত্ব ব্যাখ্যা করেন । কম শর্মিলা দত্ত , ডব্লুডব্লুএসসি, সিএইচকিউ, সদস্যা ও কম সুচন্দা  চক্রবর্তী, কনভেনর, ডব্লুডব্লুএসসি যৌথ ভাবে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে একটি সংক্ষিপ্ত নোট পেশ করেন। এই সভায় বিএসএনএল এর সমস্ত স্তরের মহিলা কর্মচারীরা ব্যাপক সংখ্যায় অংশ গ্রহণ করেন । তাদের উপস্থিতিতে এই সভা সাফল্য মন্ডিত হয়। 

 
[18th Mar 2019]

সার্কেল এক্সিকিউটিভ কমিটির সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত 

 

আজ ১৮ মার্চ বিএসএনএলইইউ কলকাতা টেলিফোন্স সার্কেল এর সার্কেল এক্সিকিউটিভ কমিটির সভায় নিম্নলিখিত সিদ্ধান্তগুলি সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়েছে :-

১) আগামী ১৯ মার্চ বেলা দুটায় টেলিফোন ভবন লেডিজ ক্লাবে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে একটি আলোচনা সভা আয়োজিত হবে সেই সভায় ব্যাপক সংখ্যায়  মহিলা কর্মচারীদের উপস্থিত হতে হবে ।

২) আগামী ২২ মার্চ বিএসএনএলইইউ এর প্রতিষ্ঠা দিবস কলকাতা টেলিফোন্স সার্কেল এর সর্বত্র উদ্দীপনার সাথে পালন করতে হবে। 

৩) আগামী ৫ এপ্রিল সঞ্চার ভবন অভিযানে প্রত্যেক এরিয়া থেকে কমপক্ষে পাঁচ জন সদস্য সহ বিএসএনএলইইউ এর  সকল সার্কেল অফিস বেয়ারার ও ডিস্ট্রিক্ট সম্পাদকগণ কে অংশ গ্রহণ করতে হবে । এই অভিযানকে সাফল্য মন্ডিত করার জন্য অবিলম্বে অংশগ্রহণকারীদের তাদের ট্রেনের টিকেট কেটে নেওয়ার অনুরোধ করা হচ্ছে । 

 
[13th Mar 2019]

বিএসএনএল কো-অর্ডিনেশন কমিটির সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত সমূহ 

 

১৩.০৩.২০১৯ তারিখে একটি জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয় সি টি ও ইউনিয়ন অফিসে। সেই সভা থেকে নিম্নলিখিত  সিদ্ধান্তগুলি  নেওয়া হয়েছে :-

১) সিসিডব্লুএফ  এর ডাকে আজ ও কাল যে আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয়েছে সেই আন্দোলনের সমর্থনে বি এস এন এল কোঅর্ডিনাশন কমিটি প্রত্যেক সার্কেলের কাছে আবেদন জানাচ্ছে আগামী কাল ১৪.০৩.১৯ তারিখে কলকাতা টেলিফোন্স  ও পশ্চিমবঙ্গ সার্কেল এর সিজিএম দপ্তরে বেলা ১ টার সময় বিক্ষোভ হবে সেখানে সকল স্তরের শ্রমিক কর্মচারী দের উপস্থিত থাকার আহ্বান জানান হচ্ছে।

২) ১৮.০৩.২০১৯ ফেব্রুয়ারি  মাসের বেতনের দাবিতে প্রতিটি অফিস দফতরে  এ বিক্ষোভ করে সিজিএম  এর কাছে বেতন দেওয়ার দাবি জানাতে  হবে। 

৩) ২০.০৩.২০১৯ এর মধ্যে বেতন নাহলে সিজিএম  এর দপ্তরে অবস্থান বিক্ষোভ ২০.০৩.১৯ তারিখে করতে হবে।

৪) মে দিবসের সভা টেলিকম ইন্সটিটিউট হল, সিটিও বিল্ডিং এ ০৩.০৫.২০১৯ তারিখে করা হবে।

৫) আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের প্রচার এর জন্য লিফলেট করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

৬) আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে স্ট্রীট কর্ণার  ও  এক্সচেঞ্জে  এর সামনে সভা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

৭) জেলা স্তরেও অনুরূপ স্ট্রীট কর্ণার সভা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

 
You are Visitor Number Hit Counter
Hit Counter
[CHQ] [AP] [Kerala] [Karnataka] [Tamil Nadu] [Calcutta] [West Bengal] [Punjab] [Maharashtra] [Orissa] [MP] [Gujrat] [SNEA] [AIBSNLEA] [TEPU]
[Intranet / BSNL] [DOT] [DPE] [TRAI] [PIB] [CITU ] / AIBDPA