20th Mar 2019: আসন্ন ৫ এপ্রিল সঞ্চার ভবন অভিযান সফল করুন,

Implement 3rd PRC with effect from 01.01.2017.

No tower subsidiary company in BSNL. 

 

3rd Jan 2019: ৮ ও ৯ জানুয়ারি দুদিনের সাধারণ ধর্মঘট সফল করুন ,

কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মচারী বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নগুলির ডাকে আগামী ৮ ও ৯ জানুয়ারি দুদিনের সাধারণ ধর্মঘট এর ডাক দেওয়া হয়েছে । এই ধর্মঘটে বিএসএনএল এর সমস্ত কর্মচারীদের সামিল হওয়ার জন্য বিএসএনএলইইউ আহ্বান জানাচ্ছে। 

 

1st Feb 2019: ৩ দিনের ধর্মঘট ,

অল ইউনিয়ন এবং অ্যাসোসিয়েশন অফ বিএসএনএল এর ডাকে ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে  তিন দিনের ধর্মঘট সফল করুন 

 

20th Mar 2019: বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করুন,

আগামী ২২ মার্চ ২০১৯  বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস বিএসএনএল এর প্রতিটি অফিস দফতরে ব্যাপক ঊদ্দীপনার সাথে পালন করুন। 

 

Com Prabir Kumar Dutta
( President )

Com. Sisir Kumar Roy
( Secretary )

Com. Debasis Dey
( Treasurer )

 
 
bsnleuctc@yahoo.co.in
 
BSNL Employees Union Calcutta Telephones Circle
 
Site Updated On : 17th Apr 2019
 
[11th Mar 2019]

জিএম  (এইচ আর এন্ড অ্যাডমিন) এর সঙ্গে মিটিং :

 

আজ ১১ মার্চ বিএসএনএলইইউ এবং সিটিটিএমইউ এর একটি প্রতিনিধিদল জিএম (এইচ আর এন্ড অ্যাডমিন) এর সঙ্গে দেখা করেন । সেই প্রতিনিধি দলে ছিলেন কম শিশির রায়, সার্কেল সম্পাদক, কম বিশ্বজিৎ শীল, সহকারী সার্কেল সম্পাদক, কম অরূপ সরকার, সার্কেল সম্পাদক ও কম লোকনাথ  ঘোষ, কার্যকরী সম্পাদক । তারা জিএম এর সঙ্গে নিম্নলিখিত বিষয়গুলি আলোচনা করেন,

১) কম প্রশান্ত দে, ব্যারাকপুর এরিয়া এর জিপিএফ এর বিষয়টি নিষ্পত্তি করা ।

২) কম দিবাকর চক্রবর্তী, হাওড়া এরিয়া এর প্রেসিডেন্সিয়াল অর্ডার বের করা ও তার অবসরকালীন বিষয়গুলি সমাধান।

৩) বিএসএনএল এর নিয়মিত ও অনিয়মিত কর্মচারীদের বেতন প্রদান ।

৪) কল্যাণী ট্রেনিং সেন্টার এর জব কন্ট্রাক্ট লেবারদের টেন্ডার চুড়ান্ত করা।

৫) সিটি, এলডি ও প্ল্যানিং এরিয়ায় জব কন্ট্রাক্ট লেবারদের নভেম্বর, ২০১৮ এর বেতন ভেন্ডার এখনও পর্যন্ত প্রদান করে নি ।

৬) সার্কেল কাউন্সিল মিটিং এর তারিখ স্থির করা ।

৭) জেই ট্রেনীদের এইচ আর বিষয়গুলি সমাধান।

 
[9th Mar 2019]

ফেব্রুয়ারি মাসের টেলিকম ওয়ার্কার :

https://drive.google.com/file/d/1Fqr3qmTBj716MiFGY_SGBfkRRSO9UpDp/view?usp=drivesdk

 
 
[9th Mar 2019]

মার্চ মাসের টেলিকম ওয়ার্কার :

https://drive.google.com/file/d/1XCMcDBXkAk0H-T62u-711rDK8LRstIfb/view?usp=drivesdk

 
 
[9th Mar 2019]

শ্রী মনোজ সিনহা, মাননীয় যোগাযোগ মন্ত্রী কে কম তপন সেন, সাধারণ সম্পাদক, সিআইটিইউ এর চিঠি :

 

প্রতি,

শ্রী মনোজ সিনহা,

যোগাযোগ  মন্ত্রী ,

ভারত সরকার, নিউ দিল্লি

মাননীয় মহাশয়,

বিএসএনএল এর ১লক্ষ ৬৮ হাজার  কর্মচারী ও আধিকারিকদের ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ মাসের বেতন প্রদান না হওয়ার বিষয়ে আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি ও সেই সাথে বর্তমান পরিস্থিতিতে আপনার হস্তক্ষেপ করার অনুরোধ জানাচ্ছি। কর্তৃপক্ষের মত অনুসারে প্রচন্ড আর্থিক সমস্যার কারণে  এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। সেই সাথে ডিওটি এর জরুরি অপারেশনাল এক্সপেন্ডিচার এর জন্য ব্যাঙ্ক লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে যে কঠোর বাধা নিষেধ লাগু করেছিল সেটাও অন্যতম কারণ।

আপনি জানেন, বিএসএনএল এর অত্যন্ত আর্থিক সমস্যা সত্ত্বেও বিগত তিন  বছর ধরে অপারেশনাল প্রফিট করছে যা কেবল মাত্র সম্ভব হয়েছে বিএসএনএল এর সমস্ত কর্মচারীদের  ঐকান্তিক প্রচেষ্টার ফলে। টেলিকম সেক্টরের এই কঠিন ও সংকটজনক পরিস্থিতিতে বিএসএনএল এর গ্রাহক সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধির জন্যও বিএসএনএল এর সমস্ত কর্মচারীদের ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস কৃতিত্বের দাবি রাখে। এছাড়াও বিএসএনএল পরিষেবা প্রদান করার সাথে  সাথে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থার কাঠামো তৈরি করার বিশাল দায়িত্ব কেন্দ্রীয় সরকারের ও যোগাযোগ মন্ত্রকের হয়ে সাফল্যের সাথে সম্পন্ন করেছে। এই দায়িত্ব পালন করতে বিএসএনএল এর ঐক্যবদ্ধ কর্মী বাহিনী ছাড়া আর কেউই এগিয়ে আসে নি ।

জাতির প্রতি এই দায়বদ্ধতা সত্ত্বেও কর্মচারী ও আধিকারিকদের  বেতন প্রদান না হওয়া বিএসএনএল এর প্রতি চরম অবমাননা, আর্থিক সমস্যা সত্ত্বেও বিএসএনএল  কর্তৃপক্ষের এই উদাসীনতা সমস্ত কর্মচারী ও আধিকারিকদের মধ্যে ক্ষোভেরসৃষ্টিক করেছে। এতত্সত্ত্বেও বিএসএনএল এর কর্মচারীরা সংগঠনের স্বাভাবিক কাজকর্ম বজায় রেখেছে , তারা আশা করে যে কর্তৃপক্ষ অনুরূপ দায়িত্ববোধ এর পরিচয়দেবেনও ও মন্ত্রকের অবিলম্বে হস্তক্ষেপের মাধ্যমে বেতন প্রদান এর বন্দোবস্ত করবেন। 

এই পরিস্থিতিতে এটা বোঝা জাচ্ছে না ডিওটি কেন অহেতুক বিএসএনএল এর অপারেশনাল এক্সপেন্ডিচার এবং ক্যাপিটাল এক্সপেন্ডিচার এর জন্য ব্যাঙ্ক লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে কঠোর বাধার সৃষ্টি করছে। বিএসএনএল এর বাজারে ধার মাত্র ১৩৯০০ কোটি টাকা যেখানে প্রতিদ্বন্দ্বী বেসরকারি কোম্পানীগুলির ঋণ কয়েক গুণ। ভাইভোডাফোন -আইডিয়া , এয়ারটেল ও রিলায়েন্স জিও এর ঋণের পরিমাণ যথাক্রমে  ১২০০০০ কোটি, ১১৩০০০ কোটি ও ২০০০০০ কোটি টাকা অর্থ্যাৎ প্রায় দশ গুণ। 

এই পরিস্থিতিতে বিএসএনএল কে অপারেশনাল ও ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল এর জন্য ব্যাঙ্ক লোনের ক্ষেত্রে ডিওটী যদি সাহায্য না করে অথবা কেন্দ্রীয় সরকার এর সহায়তা ছাছা এই তীব্র ট্যারিফযুদ্ধ ও টেলিকম ক্ষেত্রে  প্রচন্ড প্রতিযোগিতায় বিএসএনএল প্রতিযোগিতার মাধ্যমে টিকে থাকতে পারে  না। আপনি নিশ্চয়ইএকমত হবেন এই অযৌক্তিক , অন্যায্য প্রতিবন্ধকতা বিএসএনএল কে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেবে। 

আমি বিশ্বাস করি যে বিএসএনএল এর সমস্ত কর্মচারী ও আধিকারিকরা বিএসএনএল কে প্রধান রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা হিসেবে ঘুরে দাড়ানোর জন্য দৃঢ় অঙ্গীকার বদ্ধ। বস্তুত বিগত তিন বছর ধরে অপারেশনাল প্রফিট করার মধ্যে দিয়ে এটা তারা প্রমাণ করেছেন। এখন কেন্দ্রীয় সরকার ও কর্তৃপক্ষের এব্যাপারে সদর্থক ভূমিকা পালন করে কর্মচারীদের মনোবল বৃদ্ধির প্রয়োজন। আপনি অবগত আছেন যে কাজ করিয়ে সময়মত বেতন না দেওয়া এদেশে অপরাধ। তাছাড়া বিএসএনএল এর মত সংস্থা যেখানে কর্মচারীরা দক্ষতার সঙ্গে কাজ করে এই প্রতিকূল পরিস্থিতিতে সংস্থাকে এগিয়ে নিয়ে যাবার চেষ্টা করছে সেখানে বেতন না হলে কর্মীদের মানসিক ভাবে আহত করে। এই সংকটজনক পরিস্থিতিতে যখন লাভ এর দিকে সংস্থা এগোনোর চেষ্টা করছে তখন এই অবস্থা অনন্তকাল চলতে দেওয়া যায় না। 

উপরোক্ত বিষয়গুলি বিবেচনা করে, আমি আপনার কাছে অনুরোধ করছি পরিস্থিতির গুরুত্ব বিবেচনা করে ও যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া যাতে কেন্দ্রীয় সরকার ও মন্ত্রক এগিয়ে আসে ও আর্থিক সহায়তা, বিএসএনএল এর অপারেশনাল ও ক্যাপিটাল এক্সপেন্ডিচার  এর জন্য ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নেবার ক্ষেত্রে অহেতুক বাধা দুর ও সময় মত ববিএসএনএ বিএসএনএল এর কর্মচারী ও আধিকারিকদের  বেতন প্রদান  সহ সমস্ত ব্যাপারে সহায়তা করে।

আপনার পক্ষ থেকে সময়োচিত ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশা রাখি ।

 অভিনন্দন সহ ,

আপনার বিশ্বস্ত,

তপন সেন, সাধারণ সম্পাদক, সিআইটিইউ 

 
[8th Mar 2019]

আন্তর্জাতিক নারী দিবস :

 

আজ ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে একটি মিছিল সংগঠিত হয় মৌলালির রামলীলা ময়দান থেকে ধর্মতলায় লেনিন মুর্তির পাদদেশ পর্যন্ত। আন্তর্জাতিক নারী দিবসে মহিলাদের উপর সমস্ত রকম বৈষম্য দূর করতে সংগ্রাম গড়ে তোলা এবং হিংসা ও সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গঠনের আহ্বান জানিয়ে মিছিলে যোগ দেন পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত অংশের মহিলারা। এই মিছিলে কলকাতা টেলিফোন্স সার্কেল এর নিয়মিত, অনিয়মিত ও অবসরপ্রাপ্ত মহিলা কর্মচারীরা ব্যাপক সংখ্যায় অংশ গ্রহণ করেন ।

 
[7th Mar 2019]

বেতন প্রদান না হওয়া ও কর্তৃপক্ষের প্রতিহিংসাপরায়ন আচরণ - এইউএবি নেতৃত্ব কর্পোরেট অফিস এ অনশন কর্মসূচি পালন করবে 

 

আজ ৭ মার্চ এইউএবি নেতৃত্ব একটি জরুরী সভা আয়োজন করেন। এই সভায় বিএসএনএলইইউ, এনএফটিই, এসএনইএ, এআইবিএসএনএলইএ, এআইজিইটিওএ,  টিইপিইউ , বিএসএনএল এমএস ও বিএসএনএল ওএ এর জিএস ও বর্ষীয়ান নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন । সভায় নিম্নলিখিত বিষয়গুলি আলোচিত হয়,

১) বিএসএনএল কর্মচারীদের ফেব্রুয়ারি মাসের বেতন প্রদান না হওয়া ।

২) এইউএবি নেতৃত্ব এর প্রতি বিশেষত এক্সিকিউটিভ অ্যাসোসিয়েশন এর নেতৃবৃন্দদের প্রতি প্রতিহিংসাপরায়ন আচরণ।

৩) এইউএবি নেতৃত্ব এর পেশ করা দাবিগুলির বিষয়ে। 

উপরোক্ত বিষয়গুলি নিয়ে পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনার পর সর্বসম্মতিক্রমে নিম্নলিখিত সিদ্ধান্তগুলি গৃহীত হয় -

১) সভার পরে সিএমডি, বিএসএনএল এর সঙ্গে দেখা করে ফেব্রুয়ারী মাসের বেতন প্রদান না হওয়া ও কর্তৃপক্ষের প্রতিহিংসাপরায়ন আচরণ নিয়ে আলোচনা করা । 

২) কর্পোরেট অফিস এর সামনে ১২ ফেব্রুয়ারি থেকে  রিলে অনশন কর্মসূচি পালন। 

৩) যদি দাবিগুলি আদায় না হয় তবে সার্কেল ও ডিস্ট্রিক্ট স্তরে অনশন কর্মসূচী পালন করতে হবে। 

৪)  এপ্রিল মাসে প্রধানমন্ত্রীর দফতর অভিযান করতে হবে । 

 
[7th Mar 2019]

ফেব্রুয়ারি মাসের বেতন প্রদান না হওয়ায় কলকাতা টেলিফোন এ বিক্ষোভ সমাবেশ 

 

আজ ৭ মার্চ এইউএবি, কলকাতা টেলিফোন সার্কেল এর উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ সমাবেশ টেলিফোন ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। এই সভায় কলকাতা টেলিফোন এর এক্সিকিউটিভ, নন-এক্সিকিউটিভ, ঠিকা মজদুর ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীরা ব্যাপক সংখ্যায় অংশ গ্রহণ করেন। এইউএবি এর বিভিন্ন নেতৃত্ব, কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মচারীদের  কোঅর্ডিনেশন কমিটি ও পেনশনারশ সংগঠনের নেতৃত্ব বক্তব্য রাখেন।

এই সভা থেকে একটি প্রতিনিধি দল সিজিএম এর সঙ্গে দেখা করেন । এই দলে কম শিশির রায় , সার্কেল সম্পাদক, বিএসএনএলইইউ,  কম প্রবীর দত্ত , সার্কেল সভাপতি, বিএসএনএলইইউ,  কম শেখর মজুমদার , সার্কেল সম্পাদক , এনএফটিই , কম ত্রিদীপ চক্রবর্তী , সার্কেল সভাপতি , এআইবিএসএনএলইএ , কম অজয় কুন্ডু, সহকারী সার্কেল সম্পাদক , এআইবিএসএনএলইএ , কম সৌমেন্দ্রনাথ ঘোষ, সহকারী সার্কেল সম্পাদক , এসএনইএ , কম শংকর সান্যাল , সার্কেল সভাপতি , কম বিশ্বজিৎ শীল ,সহকারী সার্কেল সম্পাদক, বিএসএনএলইইউ , কম হরেকৃষ্ণ ফৌজদার, এসএনইএ এবং কম সৈকত দাস, সার্কেল সম্পাদক , এআইজিইটিওএ ছিলেন । 

এই প্রতিনিধি দল সিজিএম এর সঙ্গে দেখা করেন এবং ফেব্রুয়ারি মাসের বেতন প্রদান না হওয়া ও বায়োমেট্রিক মেশিন এর মাধ্যমে কর্মচারীদের উপস্থিতি নিরূপন করার বিষয়ে তার সাথে আলোচনা করেন। এই আলোচনায় সিজিএম জানান জানুয়ারি মাস পর্যন্ত জিপিএফ এর টাকা জমা পড়েছে। কিন্তু বেতন প্রদানের ব্যাপারে কলকাতা টেলিফোন কর্তৃপক্ষ কিছু জানে না বলে তিনি জানান। তাকে ঐ দুই বিষয়ে দুটি চিঠি এইউএবি এর পক্ষ থেকে দেওয়া হয়। 

 
You are Visitor Number Hit Counter
Hit Counter
[CHQ] [AP] [Kerala] [Karnataka] [Tamil Nadu] [Calcutta] [West Bengal] [Punjab] [Maharashtra] [Orissa] [MP] [Gujrat] [SNEA] [AIBSNLEA] [TEPU]
[Intranet / BSNL] [DOT] [DPE] [TRAI] [PIB] [CITU ] / AIBDPA