15th Aug 2019: আসন্ন অষ্টম মেম্বারশীপ ভেরিফিকেশন ,

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ অষ্টম মেম্বারশীপ ভেরিফিকেশন এ বিএসএনএল এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন কে পুনরায় বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করুন 

 

20th Mar 2019: বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করুন,

আগামী ২২ মার্চ ২০১৯  বিএসএনএলইইউ এর ১৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস বিএসএনএল এর প্রতিটি অফিস দফতরে ব্যাপক ঊদ্দীপনার সাথে পালন করুন। 

 

Com Prabir Kumar Dutta
( President )

Com. Sisir Kumar Roy
( Secretary )

Com. Debasis Dey
( Treasurer )

 
 
bsnleuctc@yahoo.co.in
 
BSNL Employees Union Calcutta Telephones Circle
 
Site Updated On : 11th Oct 2021
 
[8th Oct 2021]

কলকাতা টেলিফোনস্ সার্কেল, এর কার্যকরী সমিতির সভা

 

৮ অক্টোবর,২০২১ শুক্রবার, বিশ্বনাথ দে চৌধুরী সভা ঘরে (মেটক্যাফে) বিএসএনএল এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন, কলকাতা টেলিফোনস্ সার্কেল, এর কার্যকরী সমিতির সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই সভায় সভাপতিত্ব করেন কমরেড প্রবীর কুমার দত্ত, সার্কেল সভাপতি।

সভায় নিম্নলিখিত বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা হয় এবং সেই সঙ্গে উপযুক্ত কিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

হায়দ্রাবাদ সিইসি মিটিং এর গৃহিত সিদ্ধান্তগুলো রূপায়ণ সংক্রান্ত পর্যালোচনা করা হয়।

"মিট টু এমপ্লয়িজ" প্রচার কর্মসূচি সফলভাবে আমাদের সার্কেলে সম্পন্ন করা হয়েছে। এই কর্মসূচি উপলক্ষ্যে ২ হাজার প্যামফ্লেট ছাপানো হয় এবং সেগুলো প্রচার করা হয়েছে।

১০ দফা দাবি নিয়ে অল ইউনিয়ন অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েশন এর গৃহিত সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হয়েছে।

১৫ দফা দাবিতে ইতিমধ্যে বিএসএনএল কো- অরডিনেশন কমিটির দুই পর্যায়ের কর্মসূচি বিক্ষোভ ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এই পর্যায়ের শেষ কর্মসূচি আগামী ২২ অক্টোবর সিজিএম অফিস অভিযান অত্যন্ত গুরুত্বসহকারে জমায়েত করে সংগঠিত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যে ৬ টি জেলা কমিটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং তারা সর্বসম্মত ভাবে নতুন শাখা সংগঠন গঠন করেছে।

কনভেনশনের মধ্য দিয়ে যৌথভাবে সিটি, সেন্ট্রাল ও বিধাননগর শাখা বিএ ইস্ট নতুন জেলা কমিটি গঠন করেছে।

আরও চারটি জেলা কমিটি তাদের জেলা সম্মেলনের তারিখ ধার্য করেছে।

বাকি আছে ৩ টি জেলা, যারা এখনও তারিখ ঠিক করতে পারেন নি। তাদের অবিলম্বে তারিখ ঠিক করে সার্কেল ইউনিয়নকে জানাতে অনুরোধ করা হচ্ছে।

অভিনন্দন সহ,

শিশির কুমার রায়,

সার্কেল সম্পাদক।

 
[5th Oct 2021]

কলকাতা টেলিফোনস সার্কেলে অনিয়মিত কর্মচারীদের ১ অক্টোবর,২০২১ পর্যন্ত যে বকেয়া বিল জমা করা হয়েছে, সেই বিল পরিশোধ করার টাকা ধার্য করেছে করপোরেট অফিস এবং অনতি বিলম্বে পরিশোধ করা শুরু করা হবে।

 
 
[5th Oct 2021]

বিএ/ডিজিএম/জিএম অফিস অভিযান ও বিক্ষোভ

 

প্রিয় কমরেডগণ,

১৫ দফা দাবিতে দেশব্যাপী বিএ/ডিজিএম/জিএম অফিস অভিযান ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন বিএসএনএল এর নিয়মিত, অনিয়মিত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মীরা। কলকাতা টেলিফোনস্ সার্কেলে এই কর্মসূচি সফলভাবে প্রতিপালিত হয়েছে সত্যবালা, হাওড়া বিএ ওয়েস্ট, টেরিটিবাজার বিএ ইস্ট, বাগবাজার বিএ নর্থ, বালিগঞ্জপ্লেস , বিএ সাউথ ও টেলিফোনভবন, বিএ হেডকোয়ার্টার অফিস দফতরে।

সমস্ত সংগঠক ও নেতৃত্বদের ধন্যবাদ ও সংগ্রামী অভিনন্দন জানাচ্ছি।

- শিশির কুমার রায়,

আহ্বায়ক, বিএসএনএলসিসি,

কলকাতা টেলিফোনস্ সার্কেল।

 
[29th Sep 2021]

সিটি, সেন্ট্রাল ও বিধাননগর শাখার যৌথ (বিএ ইষ্টের) সাংগঠনিক কনভেনশন

 

আজ ২৯ সেপ্টেম্বর,২০২১, বুধবার, বিএসএনএল এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন ,সিটিডি সার্কেলের অন্তর্ভুক্ত সিটি, সেন্ট্রাল ও বিধাননগর শাখার যৌথ (বিএ ইষ্টের) সাংগঠনিক কনভেনশন অনুষ্ঠিত হয় টেরিটিবাজার ক্লাব রুমে। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন কমরেড শিশির কুমার রায় এবং কমরেড জয়ন্ত কুমার ঘোষকে নিয়ে গঠিত সভাপতিমন্ডলী। প্রথমে ইউনিয়নের রক্ত পতাকা উত্তোলন করেন কমরেড শিশির কুমার রায়, সার্কেল সম্পাদক। শহীদ বেদীতে মাল্যদান করেন কমরেড শিশির কুমার রায়, মনীষা বিশ্বাস,সুকান্তি মুখার্জি, জয়ন্ত কুমার ঘোষ সহ সার্কেল ইউনিয়ন ও এআইবিডিপি এর নেতৃবৃন্দ। নব নির্বাচিত ব্রান্চ্ সম্পাদক সুজিত গাঙ্গুলী, সুব্রত কুমার পাল ও স্বপন দাস সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ মাল্যদান করেন। কমরেড জ্যোৎস্না বসু, কমরেড পরিতোষ বসু ও কমরেড শিপ্রা মুখার্জি সহ শহীদদের স্মরণে কিছুক্ষন নিরবতা পালন করা হয়। কমরেড সুকান্তি মুখার্জি, আহবায়ক, খসড়া প্রতিবেদন পেশ করেন।

প্রতিবেদনকে সমর্থণ করে বক্তব্য রাখেন কমরেড সুব্রত পাল, কমরেড সুজিত গাঙ্গুলি ও কমরেড স্বপন দাস। আলোচনায় অংশ নেন বিধাননগর জেলার কমরেড কেশব নাগরী,সনত আচার্য, সেন্ট্রাল জেলার কমরেড স্বপন মিশ্র ও রবীন সাহা। কনভেনশন এর সাফল্য ও শুভেচ্ছা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কমরেড মনীষা বিশ্বাস এআইবিডিপিএ। কমরেড শিশির কুমার রায়, সার্কেল সম্পাদক, পুরো বিষয়টির উপর বিস্তারিত আলোচনা করেন। এরপর সর্বসম্মত ভাবে প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়। আগামী ২০২১-২০২৩ এই দুই বছরের জন্য ১৯ জনের জেলা কমিটি সর্বসম্মত ভাবে নির্বাচিত হয়।সভাপতি কমরেড শিশির কুমার রায়, সম্পাদক কমরেড সুকান্তি মুখার্জি ও কোষাধ্যক্ষ কমরেড জয়ন্ত কুমার ঘোষ সহ ১৯ জনের কমিটি। ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কমরেড জয়ন্ত কুমার ঘোষ।। শ্লোগানের মধ্যে দিয়ে সভা শেষ করেন সভাপতি মন্ডলী।

 
[24th Sep 2021]

সেন্ট্রাল জেলার দশম জেলা সন্মেলন

 

আজকের বিএসএনএলইইউ সিটিডি সার্কেলের অন্তর্ভুক্ত সেন্ট্রাল জেলার দশম জেলা সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয় এন্টালি একচেন্জের ক্লাব রুমে।। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা সংগঠনের সভাপতি কমরেড তারক নাথ সাহা। পতাকা উত্তোলন ও মাল্যদান অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সভার কাজ শুরু হয়।। সভায় সার্কেল সম্পাদক কমরেড শিশির কুমার রায় উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে ২৭ সেপ্টেম্বরের ভারত বনধ, "ন্যাশনাল মানিটাইজেসন পাইপলাইন" এর মাধ্যমে জাতীয় সম্পদ বিক্রি, গণতন্ত্র ও সংবিধানকে অগ্রাহ্য করা প্রভৃতি বিষয়ে এর উপর বক্তব্য রাখেন এর বিরূদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াই গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

শুভেচ্ছা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কমরেড অঘোর সিকদার, কমরেড মনীষা বিশ্বাস, এআইবিডিপিএ নেতৃত্ব ।।কমরেড সুরেশ মোহন দাশ,পিএম দাশ, তাপস চ্যাটাজ্জী, সমীর বিশ্বাস,মৃনাল মজুমদার সহ অনেক নেতৃত্ব উপস্থিত ছিলেন।

সার্কেল নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সার্কেল সহ সভাপতি কমরেড স্বপন ভারতী, কমরেড শর্মিলা দত্ত,সহ সম্পাদক কমরেড রাম সুন্দর বোস, জয়ন্ত কুমার ঘোষ, সুব্রত ঘোষ, বিশ্বজিৎ শীল, তপন গাঙ্গুলী, কোষাধ্যক্ষ দেবাশীষ দে, সাংগঠনিক সম্পাদক কমরেড শঙ্কর কেশর নেপাল, ও জয়ন্ত মুখার্জি।এআইবিএসএনএলের নেতৃত্ব কমরেড দীপঙ্কর ব্যানার্জি সহ অনেক নেতৃত্ব। কমরেড সুকান্তি মুখার্জি রিপোর্ট পেশ করেন এবং একাউন্ট পেশ করেন কমরেড সুব্রত কুমার ঘোষ। আলোচনায় পর রিপোর্ট পাশ হয়।। সার্কেল সম্পাদকের হাতে সভাপতি সেন্ট্রাল জেলার থেকে 25,000.00 টাকা তুলে দেন। জেলা সম্পাদক সুকান্তি মুখার্জি নতুন সম্পাদক সেন্ট্রাল এরিয়া ব্রান্চের কমরেড সুজিত গাঙ্গুলী র হাতে 10,000.00 টাকা তুলে দেন।। সভাপতি কমরেড সুকান্তি মুখার্জি, সম্পাদক কমরেড সুজিত গাঙ্গুলী, কোষাধ্যক্ষ কমরেড সুশান্ত মন্ডল সহ ১৫ জনের কমিটি নির্বাচিত হয়।। সভাপতি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভা শেষ করেন।

 
[24th Sep 2021]

আলিপুর জেলা শাখার দশম সম্মেলন

 

বিএসএনএল এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন, আলিপুর জেলা শাখার দশম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় বেহালা টেলিফোন এক্সচেঞ্জ এ।ইউনিয়নের রক্ত পতাকা উত্তোলন করেন কমরেড সুতপা পাল,সভাপতি। শহীদ বেদীতে মাল্যদান, শোক প্রস্তাব পেশ এবং নিরবতা পালন এর মধ্য দিয়ে সম্মেলন শুরু হয়। রিপোর্ট পেশ, পরীক্ষিত হিসাব পেশ করা হয় উপস্থিত সকলের আলোচনা ও অনুমোদনের জন্য। সার্কেল সম্পাদক কমরেড শিশির কুমার রায় ২৭ সেপ্টেম্বর এর ভারত বনধ, ন্যাশনাল মানিটিজেসান পাইপলাইন এর মাধ্যমে জাতীয় সম্পদ বিক্রি বন্ধ করা, কৃষি আইন বাতিল করা, মাসের শেষ দিনে বেতন দেওয়া, তৃতীয় বেতন সংশোধন, ঠিকা কর্মীদের বকেয়া বেতন পরিশোধ, ছাঁটাই কর্মীদের পুনরায় নিয়োগ ও পেনশন সংশোধন সহ সকল বিষয়ের ওপর বক্তব্য রাখেন। সঙ্গঠনকে শক্তিশালী করে মোদী সরকারের রাষ্ট্রায়ত্ব শিল্প বিক্রি বিরূদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলা একান্ত জরুরী। এই সভায় উপস্থিত ছিলেন কমরেড সু কান্তি মুখার্জি, কমরেড স্বপন ভারতী, কমরেড রামসুন্দর বসু, কমরেড জয়ন্ত ঘোষ, কমরেড সুব্রত ঘোষ, কমরেড বিশ্বজিৎ সিল, কমরেড তপন গাঙ্গুলি, কমরেড দেবাশিস দে, কমরেড বিনয় সিংহ, কমরেড অতনু মজুমদার, কমরেড ভাস্কর চক্রবর্তী, কমরেড নির্মল পাল এবং আরও অনেক কমরেড।আলোচনা ও জবাবী ভাষণের পর খসড়া কার্যবিবরণী অনুমোদন করা হয় পরীক্ষিত হিসাব সহ। কমরেড পলাশ চৌধূরী, কমরেড সংকর নেপাল ও কমরেড রাজীব দাশগুপ্ত যথাক্রমে সভাপতি, সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষ সহ ১৫ জনের কমিটি নির্বাচিত হয় এই সম্মেলনের মধ্য দিয়ে।

 
[23rd Sep 2021]

সিটি জেলার দশম সম্মেলন

 

আজ ২৩ সেপ্টেম্বর,২০২১ টেরিটি ক্লাব ঘরে সিটি জেলার দশম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিয়নের রক্ত পতাকা উত্তোলন করেন সভাপতি কমরেড শিশির কুমার রায়। শহীদ বেদীতে মাল্যদান, শোকপ্রস্তাব পাঠ, নিরবতা পালন করার মধ্য দিয়ে সম্মেলন এর কাজ শুরু করা হয়।

সম্মেলন উদ্বোধন করে কেন্দ্রীয় সরকারের রাষ্ট্রায়ত্ব শিল্প বিক্রি করার নীতির পরিবর্তন করা এবং সংযুক্ত কিষান মোর্চার ডাকে ২৭ সেপ্টেম্বর এর ভারত বনধ এর সমর্থন করে কমরেড মনীষা বিশ্বাস বক্তব্য রাখেন।সম্মেলনের সাফল্য কামনা করে বিস্তারিত বক্তব্য রাখেন কমরেড বিশ্বজিৎ সিল, সহ সার্কেল সম্পাদক। এর পর সম্পাদকীয় রিপোর্ট পেশ করেন কমরেড সত্যব্রত পুততুন্ড। পরীক্ষিত হিসাব পেশ করেন কমরেড সুব্রত ঘোষ। সম্মেলনকে অভিনন্দন জানান কমরেড স্বপন ভারতী, কমরেড জয়ন্ত ঘোষ,কমরেড সুলগ্না বসু, কমরেড সুজিত গাঙ্গুলি, কমরেড অতনু মজুমদার, কমরেড উজ্জ্বল দে প্রমুখ।

আলোচনার পর সম্পাদকীয় খসড়া রিপোর্ট এবং পরীক্ষিত হিসাব সর্বসম্মত ভাবে অনুমোদিত হয়। ব্রাঞ্চ সম্মেলন প্রতি দু' বছর অন্তর অনুষ্ঠিত করা হোক, এই বিষয়ে সংবিধান সংশোধনের প্রস্তাব পাস করা হয়। কমরেড শিশির কুমার রায়, কমরেড স্বপন কুমার দাস ও কমরেড সুব্রত ঘোষ যথাক্রমে সভাপতি, সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষ সহ ১৫ জনের কমিটি সর্বসম্মত ভাবে নির্বাচিত হয়। কমরেড সুকান্তি মুখার্জি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং সভাপতি সম্মেলন শেষ করেন স্লোগান এর মধ্য দিয়ে।

 
You are Visitor Number Hit Counter
Hit Counter
[CHQ] [AP] [Kerala] [Karnataka] [Tamil Nadu] [Calcutta] [West Bengal] [Punjab] [Maharashtra] [Orissa] [MP] [Gujrat] [SNEA] [AIBSNLEA] [TEPU]
[Intranet / BSNL] [DOT] [DPE] [TRAI] [PIB] [CITU ] / AIBDPA